ইনিংস ব্যবধানে হারল মুমিনুলরা

Published: Mon, 10 Feb 2020 | Updated: Mon, 10 Feb 2020

রাওয়ালপিন্ডিতে স্বাগতিক পাকিস্তানের সঙ্গে একমাত্র টেস্টে চরম ব্যাটিং ব্যর্থতায় ইনিংস ও ৪৪ রানে হেরে নতুন লজ্জার রেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ। 

চতুর্থ দিনে আজ রোববার ৬ উইকেটে ১২৬ রান নিয়ে ব্যাট করতে নেমে দিনের শুরুতেই শাহিন শাহ আফ্রিদির এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন বাংলাদেশের অধিনায়ক। ৫ চারে ৪১ রান নিয়ে সাজঘরে ফিরেন তিনি। তার বিদায়ের পরই মূলত টাইগাররা ইনিংস হারের দিকে ছুটে। 

তবে আশা ছিল লিটন দাস ইনিংস হারের ব্যবধানটা কমে আনবেন, কিন্তু ব্যর্থতার পরিচয় দেন তিনিও। ফলে চতুর্থ দিনে মাত্র ৪২ রান যোগ করেই থেমে যায় বাংলাদেশের ইনিংস।  

এর আগে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ২৩৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে বাবর আজম ও শান মাসুদের জোড়া সেঞ্চুরিতে ৪৪৫ রানের পাহাড় দাঁড় করায় তামিম-মাহমুদুল্লাহদের সামনে। বাংলাদেশি বোলারদের মধ্যে আবু জায়েদ রাহী ও রুবেল হোসেন ৩টি করে উইকেট লাভ করেন। 

সবার প্রত্যাশা ছিল দ্বিতীয় ইনিংসে ঘুরে দাঁড়াবে টাইগাররা। কিন্তু শুরু থেকেই খেই হারিয়ে ফেলে মুমিনুলরা। প্রথম ইনিংসে ব্যর্থতার পরিচয় দেয়া তামিম ইকবাল এ ইনিংসে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেও ইয়াসির শাহের স্পিন ঘূর্ণিতে বেশিদূর যেতে পারেননি তিনি। ৬ চারে আউট হন ৩৪ রানে। 

দলের পক্ষে একমাত্র অধিনায়ক মমিনুল হক কিছুটা হাল ধরার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পাকিস্তানি বোলার নাসিম শাহ ও ইয়াসির শাহের বোলিংয়ে তোপে পথহারা বাংলাদেশ আর খেলায় ফিরতে পারেনি। ফলে ইনিংস ও ৪৪ রানের বাজে হারের আরেকটি দৃষ্টান্ত দেখতে হল টাইগার প্রেমিদের।

বাংলাদেশ ইনিংস: ২৩৩ ও ১৬৮ 

পাকিস্তান ১ম ইনিংস: ৪৪৫ (মাসুদ ১০০, বাবর ১৪৩, শফিক ৬৫, হারিস ৭৫)

-এমজে