লঙ্কান বোর্ডের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় বিসিবি

Published: Sun, 13 Sep 2020 | Updated: Sun, 13 Sep 2020

অভিযাত্রা ডেস্ক : করোনা সঙ্কট কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে যাচ্ছে টাইগাররা। আগামী মাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ চূড়ান্ত হয়ে আছে। চলছে দুই দলের ক্রিকেটারদের প্রস্তুতিও। করোনা পরবর্তী প্রথম হোম সিরিজ হওয়ায় আয়োজনের নানা দিক চ‚ড়ান্ত করতে সময় নিচ্ছে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড। 

সিরিজের শিডিউল চূড়ান্ত করা নিয়ে স্বাগতিক দেশের বিলম্বের কারণ নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘‌আপনারা জানেন যে, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আমাদের নিয়মিত যোগাযোগ হচ্ছে। আমরা যে বিস্তারিত তথ্যাদি চেয়েছিলাম, লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড আমাদের জানিয়েছে, তারা তাদের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। কোয়ারেন্টাইনের ব্যাপারে তারা চেষ্টা করছে বিষয়গুলো যত কমিয়ে নিয়ে আসা যায়।’ 

‘প্রত্যেক দেশেই পরিবর্তিত পরিস্থিতি বৈশ্বিক মহামারির কারণে। শ্রীলঙ্কাতেও বিভিন্ন নিয়ম-কানুন জারি হয়েছে, আমাদের দল যখন সফর করবে, সেই কথা চিন্তা করে তারা বিষয়টিকে কতটা সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসা যায় সেই ব্যাপারে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড তাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। এভাবেই তারা আমাদের জানাচ্ছে।’ 

সফরে গিয়ে তিন দিনের মাথায় অনুশীলনে নামা যাবে শুরুতে এমনটাই জানিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। তবে এখন শোনা যাচ্ছে কোয়ারেন্টাইন বাড়তে পারে। বিসিবি সিইও অবশ্য জানালেন, সেটি সপ্তাহখানেকের বেশি হবে না। এ মাসের শেষ সপ্তাহে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ দলের। সেভাবেই চলছে মিরপুরে টাইগারদের প্রস্তুতি। 

২৪ অক্টোবর সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু হওয়ার কথা। সফরকারী দলের ক্রিকেটারদের লঙ্কায় গিয়ে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হলে কিছুটা পেছাতে পারে সিরিজ শুরুর সময়। তবে ১ সপ্তাহ কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হলে সাকিব দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে পারবে কি না এ নিয়ে দেখা দিয়েছে নতুন অনিশ্চয়তা। জুন থেকে শুরু। জুলাইয়ে লঙ্কা সফর স্থগিতের সিদ্ধান্ত। তবু থামেনি আলোচনা। 

ক্রিকেট ফেরানোর অভিপ্রায়ে স্থগিত টেস্ট সিরিজটি অক্টোবরে আয়োজন নিয়ে সিদ্ধান্ত। টি টোয়েন্টি সিরিজ অন্তর্ভুক্তি নিয়ে কথা হয়েছে। আবার বাতিলও হয়েছে। কোন দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নিয়ে দুদেশের বোর্ডের মধ্যে এতোটা দীর্ঘ আলোচনা এর আগে হয়েছে কি না সন্দেহ।

আইআর /