যেভাবে বানাবেন ভেষজ চা

Published: Mon, 07 Sep 2020 | Updated: Mon, 07 Sep 2020

অভিযাত্রা ডেস্ক : ভেষজ চায়ের রয়েছে নানা উপকারিতা। গলা খুসখুস ভাব ও ঠাণ্ডা লাগা কমাতে যেমন এটি কার্যকর, তেমনি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও জুড়ি নেই এসব চায়ের। এক কাপ গরম ভেষজ চা দূর করতে পারে কাজের ক্লান্তিও। তুলসি, পুদিনা, আদা, দারুচিনিসহ নানা ভেষজ উপাদান দিয়ে কীভাবে চা বানাবেন জেনে নিন।   

তুলসি চা : এক বাটি পানিতে এক মুঠো তুলসি পাতা ফুটতে দিন। ফুটে উঠলে আঁচ কমিয়ে দিন। কম আঁচে ১০ মিনিট ফোটান। এরপর এতে মেশান ১ চা চামচ মধু এবং ২ চা চামচ লেবুর রস। মধু দেবে এনার্জি, লেবুর ভিটামিন সি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কাজে লাগবে। আর তুলসির প্রভাবে জ্বর-সর্দি-কাশির প্রকোপ কম থাকবে।

শুকনো কাশি থাকলে ১ লিটার পানিতে ২ চা চামচ আদা কুচি, ৪ চা চামচ ধনিয়া ও এক মুঠো তুলসি পাতা দিয়ে কম আঁচে ভালো করে ফোটান। পানি কমে অর্ধেক হয়ে গেলে ছেঁকে মধু ও লেবু মিশিয়ে খান।

দারুচিনি চা : দারুচিনি, গোলমরিচ, লেবুর রস ও মধু দিয়ে বানাতে পারেন ভেষজ চা। ১ চা চামচ দারুচিনির গুঁড়া, ১/৪ চা চামচ গোলমরিচের গুঁড়া, ১ চা চামচ লেবুর রস ও ১ চা চামচ মধুর মধ্যে এক কাপ ফুটন্ত পানি দিয়ে মিশিয়ে ছেঁকে নিন। এই চা আপনাকে চাঙা রাখবে অনেকক্ষণ পর্যন্ত।

আদা চা : ১ চা চামচ আদা কুচি, ২টি লবঙ্গ, ১ ইঞ্চি দারুচিনি থেঁতো করে ২ কাপ পানি দিয়ে ফুটিয়ে নিন। এবার ৩ ইঞ্চি কমলার খোসা দিয়ে কম আঁচে ফোটান ১৫ মিনিট। দেড় চা চামচ মধু মিশিয়ে খান। জ্বর-সর্দি-গলা ব্যথার অস্বস্তি কমবে।

হলুদ চা : আধ চামচ কাঁচা হলুদ বাটা ও সিকি চামচ গোলমরিচের গুঁড়োতে ফুটন্ত জল মেশান। এতে মেশান একটা গোটা লেবুর রস আর দেড় চামচ মধু। সকাল-বিকেল খেলে ইমিউনিটি নিয়ে আর ভাবতে হবে না।

পুদিনা চা : ফুটন্ত পানিতে রোজমেরি মিশিয়ে নিন।  তাতে দিন ১০-১২টি পুদিনা পাতা। দেওয়ার আগে কুচি নেবেন। ১৫ মিনিট ঢেকে রেখে পরিবেশন করুন পুদিনা চা।

ও/এসএ/