‘নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাস করবে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা’

Published: Tue, 21 Jan 2020 | Updated: Tue, 21 Jan 2020

অভিযাত্রা ডেস্ক : বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে শিগগির ভারতের পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় প্রস্তাব পাস করা হবে বলে জানিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বলেন, আমরা এর আগে এনপিআরের বিরুদ্ধে বিধানসভায় একটি প্রস্তাব পাস করেছি। এরপর, আগামী তিন থেকে চারদিনের মধ্যে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধেও একটি প্রস্তাব পাস করব।

সোমবার (২০ জানুয়ারি) শিলিগুড়িতে উত্তরবঙ্গ উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা জানান বলে খবরে জানায় এনডিটিভি।

এনপিআর নিয়ে রাজ্যের মানুষকে সতর্ক করে তিনি বলেন, এনপিআরের নামে  দেশে ‘এক মারাত্মক খেলা’ চলছে। পশ্চিমবঙ্গে জনসংখ্যা নিবন্ধীকরণের (এপিআর) কাজ আগেই বন্ধ করে দিয়েছেন তিনি। এবার এ নিয়ে প্রতিবেশী রাজ্যগুলিকেও এনপিআরের বিষয়ে সতর্ক করলেন তিনি।  

অন্য রাজ্যগুলোকে সতর্ক করে তিনি বলেন, উত্তর-পূর্বসহ দেশের সমস্ত অবিজেপি রাজ্যগুলোর সরকার আগে এনপিআরের ফর্মে ঠিক কী কী তথ্য দেওয়া আবশ্যক সে সম্পর্কে জানুন, তারপরে জনসংখ্যা নিবন্ধীকরণ সংক্রান্ত কাজ শুরু করুন।

এর আগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) এবং এনআরসির বিরুদ্ধেও সরব হতে দেখা গেছে তাকে। তিনি দাবি করেছেন, এনপিআর আসলে এনআরসির প্রথম ধাপ। এবার তাই এনপিআর নিয়ে প্রতিবেশী রাজ্যগুলোর সরকারকেও সতর্ক করলেন তিনি।  

মমতা বলেন, আমি বিজেপি শাসিত উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলি অর্থাৎ ত্রিপুরা, আসাম, মণিপুর এবং অরুণাচলসহ বিরোধী দল-শাসিত সমস্ত রাজ্যগুলোর সরকারকে এই আইনটি যথাযথভাবে জানতে এবং এনপিআর ফর্মে কোনো ব্যক্তি সম্পর্কে বিস্তারিত বিবরণ দেওয়ার আগে তা বিবেচনা করার জন্য আবেদন করছি। আমি তাদের অনুরোধ করছি যাতে তারা তাদের রাজ্যেও এনপিআরের কাজ না এগোয়। এনপিআরের ফর্ম না বদলালে তিনি এই কাজ এগোনোর ব্যাপারে অনুমতি দেবেন না বলেও সাফ জানান তিনি।

ও/এসএ/