লাইসেন্স না নিয়ে চা প্যাকেটজাত করায় পঞ্চগড়ে ব্যবসায়ীর জরিমানা

Published: Tue, 29 Sep 2020 | Updated: Tue, 29 Sep 2020

সাইদুজ্জামান রেজা, পঞ্চগড় : লাইসেন্সবিহীন চা প্যাকেটজাত করার অপরাধে পঞ্চগড়ে মিরপুরী টি হাউজের স্বত্ত্বাধিকারী ফজলুল হককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জেলা ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নের শেখের হাট এলাকায় মিরপুরী টি হাউজের প্যাকেটজাত কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেন জেলা ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক পরেশ চন্দ্র বর্মন। ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৪৩ ধারায় এই দণ্ডাদেশ দেন তিনি।

জানা গেছে, চা প্যাকেটজাত করে ব্যবসা করতে চা বোর্ড থেকে খুচরা-পাইকারী, বিডার ও ব্লেন্ডার লাইসেন্স নিতে হয়। কিন্তু মিরপুরী টি হাউজের খুচরা-পাইকারী লাইসেন্স থাকলেও বিডার ও ব্লেন্ডার নেই। আর এসব ছাড়াই গত চার বছর ধরে চা প্যাকেটজাত করে দেধারছে ব্যবসা করছে মিরপুরীর স্বত্ত্বাধিকারী ফজলুল। এতে একদিকে তিনি ফাঁকি দিচ্ছেন সরকারি রাজস্ব। অপরদিকে, চা-এর মান অরিজিন নিয়ে রয়েছে জনমনে প্রশ্ন।

চা বোর্ড সূত্রে জানা যায়, কোন দেশ বা এমন স্থানের নামে চা-এর লাইসেন্স প্রদান করা হবে না যাতে চায়ের অরিজিন সম্পর্কে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়। অথচ দেশের স্বনামধন্য ইস্পাহানি ব্রান্ডের মির্জাপুরী চা-এর নাম অনুসারে মিরপুরী নাম দিয়ে গ্রাহকের সাথেও প্রতারণা করছেন ফজলুল। 

তবে এসব বিষয়ে ফজলুল হক বলেন, ‘লাইসেন্সগুলো করার জন্য অনলাইনে আবেদন করেছি।’

ও/এসএ/